নৌকায় জাল ভোট দেয়ায় আটক ৭

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে জাল ভোট দেয়ায় গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র থেকে সাতজনকে আটক করেছে পুলিশ। রোববার দুপুরে ভোট চলাকালীন বিভিন্ন ভোটকেন্দ্র থেকে তাদের আটক করা হয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, গোবিন্ধগঞ্জ উপজেলার সিংজানি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে বনগ্রাম রুইমারী গ্রামের বাসিন্দা হেলাল উদ্দিনের ছেলে আমির হোসেন (১৫), একই কেন্দ্র থেকে ওই গ্রামের বাসিন্দা জাহিদুল ইসলামের ছেলে মেহেদী হাসান (১৬) ও শরিফুল ইসলামের ছেলে রায়হান মিয়া (১৭), হিয়াতপুর সরকারি

প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে কুমড়াডাঙ্গা গ্রামের বাসিন্দা আনসার আলীর ছেলে মাহবুবর রহমান (৩৫) একই ভোটকেন্দ্র থেকে উত্তর শোলাগাড়ী গ্রামের আতাউর রহমানের ছেলে রুহুল আমিন ওরফে মোনারুল (২৫) এবং পান্থাপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোটকেন্দ্র থেকে পান্থাপাড়া এলাকার আব্দুল বারীর ছেলে আতিকুর রহমান (২৬) ও আজিজার রহমানের ছেলে শিমুল মিয়াকে (২৭) আটক করা হয়।

গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা রামকৃষ্ণ বর্মন বলেন, জাল ভোট দেয়াসহ বিভিন্ন কারণে তাদের আটক করা হয়েছে। ভোটগ্রহণ শেষে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পঞ্চম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপে এই উপজেলায় ভোটগ্রহণ হওয়ার কথা ছিল। ওই সময় চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী নাজমুল ইসলাম নামে এক প্রার্থী হাইকোর্টের আদেশে প্রার্থিতা ফিরে পাওয়ায় নির্বাচন স্থগিত করা হয়।

পরে নির্বাচন কমিশন থেকে এই উপজেলার ভোটগ্রহণের তারিখ নির্ধারিত হয় ৩১ মার্চ। এই উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ছয়জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে পাঁচজন এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে আটজন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। উপজেলার ১৩৯টি ভোটকেন্দ্রে ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন ভোটাররা। ভোটগ্রহণ শেষে এখন কেন্দ্রে কেন্দ্রে চলছে গণনার কাজ।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close