ইনিই হচ্ছে বিশ্বের সবচেয়ে দরিদ্র প্রধানমন্ত্রী

নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা সব সময় একদম সাদামাটা জীবন যাপন কাটান

নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা এমন সহজ সরল জীবন যাপন করেন যে, তার ব্যক্তিগত সম্পদের মাঝে উল্লেখ করার মতো তেমন কিছুই নেই। সম্প্রতি এ বিষয়ে নেপালের প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব সরকার প্রধানের সম্পদের হিসেব দিতে গিয়ে অবাক হয়ে যান।

উল্লেখ্য নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা সব সময় একদম সাদামাটা জীবন যাপন কাটান, তিনি তার দীর্ঘ জীবন বাড়তি কোন খরচ করেন নি। তার বর্তমান বয়স বর্তমানে ৭৫ বছর। তিনি তার কর্মজীবনে এবং অবসরের পরে নিজের নামে কোন সম্পদ কিনেন নি। এমন কি জনাব সুশীল কৈরালা নিজের জন্য কোন সোনা দানা কিংবা গাড়ি বাড়িও ক্রয় করেন নি। তার কেবল ৩টি মোবাইল ফোন রয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব বসন্ত গৌতম মিডিয়াকে জানায়, নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালার কোন ব্যক্তিগত সম্পদ নেই। সম্প্রতি বসন্ত গৌতম প্রধানমন্ত্রীর সম্পদের হিসেব করতে যেয়ে এই আনুষ্ঠানিক পর্যালোচনা দেখতে পান।

জানেন কি? বসন্ত গৌতম বলেন, “আমরা প্রধানমন্ত্রীর সম্পদের হিসেব তৈরি করতে যেয়ে মোটামুটি বিড়ম্বনায় পড়ি, কারণ সম্পদের হিসেব দেয়ার ফর্মে যেসব ঘর আছে তার কোনটি আমরা পূরণ করতে পারিনি। শেষ পর্যন্ত সম্পূর্ণ ফর্ম খালি রেখেই ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে জমা দিতে হয়েছে।

উল্লেখ্য নেপালের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী সুশীল কৈরালা নেপালি কংগ্রেস দলের প্রেসিডেন্ট, তিনি গত ফেব্রুয়ারিতে নেপালের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হন। বর্তমানে তিনি নেপালের প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে অবস্থান করছেন, তবে তিনি এখনো অবিবাহিত সাদামাটা জীবন যাপন করছেন।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close