জানা অজানা

জানেন কি বাংলাদেশের তারকারা কে কত টাকা দামের গাড়িতে চড়েন?

তারকা বলে কথা। তারা কোন বাড়িতে থাকেন? কোন গাড়িতে চড়েন? সবকিছুতেই রয়েছে ভক্তদের আগ্রহ। তাহলে জেনে নেয়া যাক এ সময়কার কয়েকজন তারকা কোন মডেলের কোন গাড়ি ব্যবহার করছেন…

শাকিব খান

শাকিবের বর্তমানে দুটি গাড়ি রয়েছে। ‘স্কোডা’ মডেলের দুটি গাড়ির দুই রং। একটি কালো ও একটি সাদা। সাদা গাড়িটিই বেশি ব্যবহার করা হয়। শুটিং স্পটে যাওয়ার জন্য সাদা গাড়িটি ব্যবহার করা হয়। এই গাড়িটি বেশ কয়েকবছর ধরেই ব্যবহার করা হচ্ছে। কালো গাড়িটা কিনেছেন গত বছর ঈদের আগে।শাকিব খানের গাড়ির এক একটির বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় ১ কোটি টাক।

পরীমনি

প্রিমিও ১৫ মডেলের একটি গাড়ি ব্যক্তিগত যায়ায়াতের জন্য সবসময় ব্যবহার করেন। এই গাড়িটির বর্তমান বাজার মূল্য ৩২ লক্ষ টাকা। কিন্তু শখের বশে জনপ্রিয় এই নায়িকা আরো একটি গাড়ি কিনেছেন। মজার ব্যাপার হচ্ছে, পরীমনি যে গাড়িটি কিনেছেন সেটি নীল রঙের এন্টিক, সত্তর দশকের মিতসুবিসি লাঞ্চার।

তিনি জানান, এই গাড়িতে আমি চড়বো না, ‘শোপিস হিসেবে রেখে দেব। তবে সচল রাখার জন্য মাঝেমধ্যে চালু করতে হবে।’

পরীমনির ইচ্ছে ছিল এই ধরনের গাড়ি তার সংগ্রহে রাখা। সেই ইচ্ছে অবশেষে পূরণ হলো এই নায়িকার।

অপু বিশ্বাস

এক্স করোলা ছিল তাঁর প্রথম গাড়ি। এরপর সেটি বদলে লাল রঙের টয়োটা প্রিমিও কিনেছিলেন ২০০৭ সালে। ১০ বছরের পুরনো গাড়িটি গত বছর বদলে ফেলেছেন অপু। কিনেছেন টয়োটার ২০১৭ মডেলের ব্র্যান্ড নিউ গাড়ি। তিনি এই গাড়িটি প্রায় ৪০ লক্ষ টাকা দিয়ে কিনেছেন। শুধু তাই নয়, মডেলের সঙ্গে মিলিয়ে গাড়ির রেজিস্ট্রেশন নম্বর করিয়েছেন তিনি। যার শেষ চারটি ডিজিট ২০১৭।

আরেফিন শুভ

শুভর মোট তিনটা গাড়ি। তাঁর সংগ্রহে ১৯৬৪ মডেলের একটি টয়োটা গাড়ি আছে। এক্স করোলাটাই সবচেয়ে প্রিয় এ নায়কের।তবে হুন্দাই কম্পানির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসাডর নির্বাচিত হওয়ার পর কম্পানি থেকে পেয়েছেন একটি জিপ গাড়ি। এই জিপ গাড়িটির বাজার মূল্য ৪২ লক্ষ টাকা। এখন এটিই শুভর সবচেয়ে প্রিয় গাড়ি।

মাহিয়া মাহি

প্রথম গাড়িটি এখনো রেখে দিয়েছেন মাহি—মিত্সুবিশি ল্যান্সার। গাড়িটির সঙ্গে নাকি অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। গত বছর কিনেছেন মিত্সুবিশি আউটল্যান্ডার রোডেস্ট গাড়িটি। এই গাড়িটির বাজার মূল্য ৫৫ লক্ষ টাকা। এটিও নাকি কম প্রিয় নয়। এটি নাকি স্বামী অপুর গিফট।

সাইমন

সাইমনের গাড়ি বদলানোর খুব একটা অভ্যাস নেই। প্রথম সিনেমার পরে এক্স করোলা গাড়িটি কিনেছিলেন। সাদা রঙের সেই গাড়িটি সাত বছর ব্যবহারের পর কিনেছেন টয়োটা প্রিমিও মডেলের গাড়ি। দাম পড়েছে সাড়ে ২৭ লাখ টাকা। এখন এ গাড়িটিতেই চড়েন এ অভিনেতা।

জায়েদ খান

গাড়ি পরিবর্তন করা আবার তার শখ। তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গাড়ি পরিবর্তনের রেকর্ড রয়েছে তার। অসংখবার গাড়ি পরিবর্তন করেছে। যতদূর জানা যায়, প্রথমে এক্স করোলা বদলে কেনেন প্রিমিও। পরে সেটিও বদলে কেনেন কালো রঙের লেক্সাস ২০০৯ মডেলের গাড়ি। তারপর লেক্সাস ২০০৯।

বিদ্যা সিনহা মিম

গত জন্মদিনে বাবা-মার কাছ থেকে একটি পার্ল-হোয়াইট রঙের হ্যারিয়ার গাড়ি উপহার পেয়েছেন। এই গাড়িটির বাজার মূল্য ৬৫ লক্ষ টাকা বর্তমানে এই গাড়িতেই চড়েন এই নায়িকা। মিম জানান, ২০০৭ সালে ‘লাক্স-চ্যানেল আই সুপারস্টার’ প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হন। পুরস্কার হিসেবে তাঁকে একটি নতুন গাড়ি দেওয়া হয়। এর আগে নাকি এই গাড়িটিই তিনি ব্যবহার করেছেন। -এএসএমওয়াই

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close