আন্তর্জাতিক

প্রকাশ্যে আলিঙ্গন, প্রেমিক-প্রেমিকা জুটিকে বেত্রাঘাত

জনসম্মুখে পরস্পরকে জড়িয়ে আলিঙ্গন করার অপরাধে ইন্দোনেশিয়ার আচেহ প্রদেশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রেমিক-প্রেমিকা জুটিকে ১৭ বার বেত্রাঘাত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার আচেহ প্রদেশের এক মসজিদের সামনে এই শাস্তি দেয়া হয় তাদের। দোকানে ঘনিষ্ঠ হওয়ার দায়ে একই দিনে অন্য এক বয়স্ক জুটিকেও বেত্রাঘাত করা হয়েছে।

দেশটির একটি সংবাদমাধ্যম বলছে, আচেহর এক মসজিদের সামনে ওই দুই তরুণ-তরুণীকে একটি উঁচু জায়গায় এনে দাঁড় করানো হয়। পরে তাদের বেত্রাঘাত করা হয়। এই দুই জুটির শাস্তি দেখতে মসজিদের সামনে জড়ো হয়েছিলেন কয়েকশ’ মানুষ।

সুমাত্রার এই দ্বীপে জুয়া, মদ্যপান, সমকামিতা ও বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক রুখতে শরিয়াহ আইন চালু রয়েছে। এসব অপরাধের শাস্তি প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত।

ওই তরুণ-তরুণী প্রেমিক জুটি ছাড়াও ৪০ বছরের এক পুরুষ ও ৩৫ বছরের এক নারীকেও প্রকাশ্যে বেত্রাঘাত করা হয়। এ চারজনকে বেত্রাঘাত করার আগে বেশ কিছুদিন জেলে রাখা হয়েছিল।

আচেহ প্রদেশের ডেপুটি মেয়র জয়নুল আরিফিন বলেছেন, আচেহ প্রদেশের বাইরের যারা মনে করেন এই শাস্তি খুবই নিষ্ঠুর, তারা এসে দেখে যান আসলে এই শাস্তি অনেকটাই মানবিক।

গত বছরের ডিসেম্বরে অপ্রাপ্তবয়স্ক এক কিশোরীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করায় এক ব্যক্তিকে ১০০ বার বেত্রাঘাত করা হয়। এ ঘটনায় দেশটির বিভিন্ন মানবাধিকার সংঘটন ইন্দোনেশিয়া সরকারের সমালোচনা করেন।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
Back to top button