আমিরাতে জ্বলন্ত ভবন থেকে শিশুকে বাঁচালেন বাংলাদেশি, পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অসাধারণ দক্ষতা দেখিয়েছেন বাংলাদেশি ফারুক ইসলাম নুরুল হক (৫৭)। এক শিশুর জীবন রক্ষা করার জন্য মঙ্গলবার (১৬ জানুয়ারি) এ বাংলাদেশিকে পুরস্কার দিয়ে সম্মানিত করেছে আমিরাতের আজমান সিভিল ডিফেন্স।

গত শনিবার (১৩ জানুয়ারি) রাতে আজমান নুয়াইমিয়ায় তিনতলার অ্যাপার্টমেন্ট ভবনের বারান্দায় অবস্থিত মেশিনে বৈদ্যুতিক শর্টসার্কিট হয়ে আগুন লাগে। ধোঁয়ায় ভরে যায় পুরো বাড়ি। জানালা ছাড়া বের হওয়ার আর কোনও উপায় ছিল না।

এ দিন শত লোকের ভিড়ের মধ্য থেকে ফারুক দৌড়ে গিয়ে জ্বলন্ত বিল্ডিংয়ের দ্বিতীয় তলার জানালা থেকে ফেলে দেয়া তিন বছর বয়সী শিশুটিকে ধরেন এবং সফলভাবে কোনও প্রকার আঘাত ছাড়াই শিশুটিকে বাঁচাতে সক্ষম হন।

এ ব্যাপারে ফারুক ইসলাম নুরুল হক বলেন, আমি দূর থেকে দেখছি জ্বলন্ত বিল্ডিংয়ের ধোঁয়ার মধ্য থেকে এক নারী তার সন্তানকে বাঁচাতে জানালা দিয়ে সাহায্যের জন্য চিৎকার করছেন।

সেখানে মানুষের বিশাল ভিড় ছিল কিন্তু কেউ তাকে উদ্ধার করার চিন্তা করল না।আমি আর থাকতে পারলাম না। এগিয়ে গেলাম এবং দ্বিতীয়তলায় থাকা ওই নারীর দিকে তাকালাম। নারীও আমার দিকে তাকালেন। তারপর বাচ্চাটিকে আমার হাতে ছেড়ে দিলেন।

ওই নারীর স্বামী মোহাম্মাদ সাকিব বলেন, ঘটনাটি যখন ঘটেছিল তার স্ত্রী রুবেনা বলল যে, সে দরজা দিয়ে যেতে পারবে না। আগুন ও ঘন ধোঁয়া থেকে বেঁচে থাকতে নিজেকে এবং সন্তানকে বাঁচানোর উপায় সম্পর্কে চিন্তা করতে থাকে।

জানালা দিয়ে বাচ্চাকে ফেলে বাঁচিয়ে নিজেরা একটি পার্কিং গাড়ির ওপর লাফিয়ে পড়েন। তার স্ত্রী গুরতর আহত অবস্থায় হাসপাতালের আইসিইউতে আছেন।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close