এবার গ্রেফতার হচ্ছেন সেফাতুল্লাহ

সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যম ফেসবুকে লাইভে এসে মহানবী (সাঃ) কে ও পবিত্র কোরআন শরীফ অবমাননার জন্যে দেশব্যাপী সমালোচনার ঝড় উঠেছে সেফাতুল্লাহ (সেফুদা)’র বিরুদ্ধে। দেশের বিভিন্ন জায়গাতে তার বিচারের দাবিতে হচ্ছে আন্দোলন, মানববন্ধন।অবশেষে পবিত্র ইসলাম ধর্ম, কোরআন শরিফ এবং মহানবী হযরত মুহম্মদকে (স.) অবমাননাকারী সেফাত উল্লাহ সেফুদার বিরুদ্ধে সাইবার অপরাধে মামলা হয়েছে।

গত ১৯ এপ্রিল শুক্রবার সন্ধ্যায় অস্ট্রিয়ার ১৬ নম্বর ডিস্ট্রিক্ট পুলিশের সাইবার ক্রাইম ইউনিট বরাবর এ মামলা করেন বাংলাদেশি কমিউনিটি মসজিদ নিয়ে গঠিত সম্মিলিত জোট।এদিকে সম্মিলিত জোটের পক্ষে বায়তুল মোকাররম জামে মসজিদ ভিয়েনার সিনিয়র ইমাম এবং মাদানি কোরআন স্কুল ভিয়েনার প্রতিষ্ঠাতা ড. ফারুক আল মাদানি, বায়তুল মামুর মসজিদের সভাপতি মহসিন মোল্লা এবং জাফর এ মামলা করেন।

প্রাথমিকভাবে সাইবার ক্রাইম ইউনিট বিশেষজ্ঞরা এটিকে গুরুত্বপূর্ণ অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করেছেন এবং অপরাধ প্রমাণিত হলে সর্বোচ্চ ২ বছরের জেল জরিমানা হতে পারে। বর্তমানে অস্ট্রিয়াতে ইস্টার সানডের ছুটি চলছে এবং ছুটির পর এই বিষয়ে তদন্ত শুরু হবে।

এদিকে ধারণা করা হচ্ছে, তাকে গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে এবং অধিকতর তদন্তের স্বার্থে তার সমস্ত সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম পুলিশের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে যাওয়া হবে।এ বিষয়ে ভিয়েনাস্থ প্রবাসী বাংলাদেশি কবির আহমেদ জানান, অচিরেই নাস্তিক সেফাত উল্লাহ শাস্তি নিশ্চিত হবে।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close