ভাত নষ্ট হচ্ছে? ফেলে না দিয়ে তৈরি করুন সুস্বাদু মিষ্টি

ভাত নষ্ট হচ্ছে? ফেলে না দিয়ে তৈরি করে নিন সুস্বাদু এই মিষ্টি! গৃহস্থ বাড়িতে ভাত একটু বেশি থাকবে না, তা হয় না৷ আবার ধরুন যেমন আপনি প্রায় প্রতিদিনই কচিকাঁচাদের সঙ্গে নিয়ে সন্ধেবেলায় বেড়িয়ে পড়ছেন কেনাকাটিতে৷ শপিং করতে করতে ক্লান্ত হয়ে পড়ছে খুদে৷ তাকে আবারও চাঙ্গা করতে আপনি ঢুকছেন রেস্তরাঁয়৷

ব্যস, বাড়িতে এসে আর খাওয়ার ইচ্ছা নেই কারও৷ রান্না করে রাখা ভাত দিনের পর দিন জমছে ফ্রিজে৷ ভাত ফেলে দিতে হবে ভেবে মন খারাপ আপনার৷ কিন্তু জানেন কি, ওই ভাত ফেলে না দিয়ে বরং খুব সহজেই তা থেকে বানিয়ে ফেলতে পারেন সুস্বাদু মিষ্টি৷ আপনার জন্য রইল ভাতের রসগোল্লা তৈরির প্রণালী৷ ভাতের রসগোল্লা তৈরির উপকরণ: ভাত পরিমাণমতো, এক চামচ ময়দা, এক চামচ গুঁড়ো দুধ, এক চামচ ঘি, চিনি : দেড় কাপ, পানি : তিন কাপ।

ভাতের রসগোল্লা তৈরির প্রণালী: প্রথমে একটি বাটিতে ভাত নিন৷ ভাল করে হাত দিয়ে চটকে নিন ভাতটি৷ একটি মিক্সিতে দিয়ে পেস্ট তৈরি করুন৷ এরপর একটি ফ্রাইং প্যানে ঘি ঢালুন৷ ভাতের ওই পেস্টটি ওই প্যানে ঢেলে দিন৷ হালকা আঁচে ভাতের পেস্টটি নাড়াচাড়া করুন৷ সোনালি রং হয়ে গেলে গ্যাস বন্ধ করুন৷

এবার অন্য একটি পাত্রে ময়দা ও গুঁড়ো দুধ ঢালুন৷ ভাতের সঙ্গে মিশিয়ে নিন৷ এবার ছোট ছোট লেচি তৈরি করুন৷ আলাদা একটি পাত্রে চিনির রস তৈরি করে নিন৷ এবার ওই লেচিগুলি চিনির রসে ফেলে দিন৷ দশ মিনিট পর রস ছেঁকে লেচিগুলি তুলে নিন৷ খেয়ে দেখুন ছানার তৈরি রসগোল্লাকেও হার মানাবে এই মিষ্টি৷

সারা বছরের জন্য টমেটো সংরক্ষণ করার পদ্ধতি

আসলে টমেটো একটি মৌসুমী ফল হলেও ভাল রাখার একতা বিষয় থাকে। আমরা হয়ত এক টমেটো কিনে রেখে দিতে পারি কারণ সবসময় তো আর পাওয়া যাবে না । টমেটো ছাড়া আমাদের বলতে গেলে চলেই না। খাবার সুস্বাদু করতে টমেটোর জুড়ি নেই। আর টমেটোর চাটনি তো ভাতের সঙ্গে চাই-ই চাই।

শীতের শেষে এই সময়টা টমেটোর দাম তুলনামূলক কম থাকে। তাই এই সময় টমেটো কিনে ফ্রিজে সংরক্ষণ করতে পারেন। কিন্তু আমরা অনেকেই টমেটো সংরক্ষণে ভুল পদ্ধতি গ্রহণ করি। পুরো টমেটো আস্ত রেখে দেই। তার ফলে হয় কি টমেটো ফ্রিজ থেকে বের করে বরফ ছাড়ালে আর কাটা যায় না। সহজে গলে যায়। তাই এই সমস্যার সমাধান করতে দেখে নিন টমেটো সংরক্ষণের উপায়।

সংরক্ষণের নিয়ম: আগে ভালো করে পানিতে ধুয়ে নিতে হবে টমেটো গুলো। তার পর ভাল করে পানি ঝরিয়ে, শুকিয়ে নিতে হবে। এবার টমেটোর বোটার অংশ ফেলে ৪/১ ভাগ করে কাটুন।

এর পর এই টমেটো একটি থালায় টিস্যু বিছিয়ে এর উপর সাজিয়ে ফ্রিজিং করুন। টমেটো যেন একটির গায়ে আরেকটি লেগে না যায়। ডিপ ফ্রিজে রাখার পর টমেটো জমে গেলে এবার একটি পলিথিনে ভরে ডিপ ফ্রিজে সংরক্ষণ করুন। এই টমেটো প্রায় ১ বছর পর্যন্ত ভালো থাকে।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
Back to top button
Close