বিনোদন

একযোগে দেশের সব সিনেমা হল বন্ধের ঘোষণা

একযোগে দেশের সব প্রেক্ষাগৃহ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি। বুধবার (১৩ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টায় ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি আগামী ১২ এপ্রিল থেকে দেশের সব প্রেক্ষাগৃহ বন্ধ করে দেয়ার ঘোষণা দেয়। সিনেমা হল বাঁচলে, চলচ্চিত্র শিল্প বাঁচবে-এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতি।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির সভাপতি ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ, সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও বর্তমান উপদেষ্টা মির্জা আব্দুল খালেক, উপদেষ্টা ও প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক মিয়া আলাউদ্দিন। লাগাতার আর্থিক ক্ষতি এবং পর্যাপ্ত দেশিয় সিনেমা না থাকায় ভারতীয় ছবি আমদানির পথ সহজ করার দাবি জানাতেই মূলত এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

বাংলাদেশ প্রদর্শক সমিতির পক্ষ থেকে প্রথমে প্রেস বিজ্ঞপ্তি পড়ে শোনান সংগঠনটির প্রধান উপদেষ্টা সুদীপ্ত কুমার দাস। বক্তব্যে দেশের সিনেমা হলগুলোর দুরাবস্থার চিত্র তুলে ধরে তিনি বলেন, ‘যখন থেকে আমরা উপমহাদেশীয় ছবি আমদানির দাবী করে আসছি, তখন থেকে আমাদের আশ্বস্ত করতে বলা হচ্ছে, ভালো পরিচালক আসছেন। আমাদের দেশীয় চলচ্চিত্র শিল্প ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। তার উদাহরণ কি সিনেমা হলের সংখ্যা কমে ১৭৪ হওয়া এবং গত বছর দেশিয় ছবির নির্মাণ সংখ্যা নেমে ৩৫-এ আসা?’

তিনি বলেন, ‘আমরা সিদ্ধান্ত নিয়েছি ১২ এপ্রিল, ২০১৯ তারিখ শুক্রবার থেকে সারা দেশে সিনেমা হল বন্ধ করে দেব।’ ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, এটা ঠিক যে সিনেমা হলগুলোর পরিবেশ ভালো না। তবে ব্যবসা বাড়লে মালিক হল উন্নয়ন করবে। কিন্তু হল ভালো হলেই যে মানুষ সিনেমা দেখতে আসবে, তা নয়। ভালো সিনেমা নির্মিত হলে মানুষ মাটিতে বসেও সিনেমা দেখবে।

এসময় তিনি ভারত ও বাংলাদেশে একসাথে সিনেমা মুক্তি দেয়ার বিষয়ে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তবে কতদিন সিনেমা হল বন্ধ থাকবে সে বিষয়ে সুনির্দিষ্ট কোনো তথ্য দেননি সংগঠনটির নেতারা।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
Back to top button