লাইফ সাপোর্টে বরেণ্য অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান

দেশের কিংবদন্তি অভিনেতা এটিএম শামসুজ্জামান লাইফ সাপোর্টে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চ্যানেল আই অনলাইনকে খবরটি জানিয়েছেন এটিএম শামসুজ্জামানের ছোট ভাই সালেহ জামান সেলিম।

সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে চ্যানেল আই অনলাইনকে তিনি জানান, মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালের লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে এটিএম ভাইকে।

তিনি আরো বলেন, আমি সারাদিন বসুন্ধরায় ছিলাম। আমার মিটিং চলছিলো। বিকেলে আমাকে ফোন করে এ বিষয়টি জানানো হয় যে ভাইয়ের শরীর খারাপের দিকে যাচ্ছে, সেই আশঙ্কা থেকেই লাইফ সাপোর্টে নেয়া হয়েছে। কিন্তু এটা আমি কোনোভাবেই মেনে নিতে পারছি না। কারণ আমি একেবারে সুস্থ অবস্থায় ভাইকে রেখে এসেছি। এরমধ্যে কী হয়ে গেলো! এই মুহূর্তে রাস্তায় আছি। হাসপাতালে যাওয়ার পর বিস্তারিত জানাতে পারবো।

এরইমধ্যে দেশবাসী ও এটিএম শামসুজ্জামানের ভক্ত অনুরাগীদের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেন সেলিম। গত শুক্রবার রাতে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়েন এটিএম শামসুজ্জামান। মল-মূত্র বন্ধ হয়ে যায়। শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। ওইদিন রাত এগারোটার দিকে তাকে ভর্তি করা হয় রাজধানীর গেন্ডারিয়ার আজগর আলী হাসপাতালে। শনিবার দুপুরে প্রায় তিন ঘন্টার অপারেশন শেষে পর্যবেক্ষণে রাখা হয় এটিএম শামসুজ্জামানকে।

এরপরেই এটিএম শামসুজ্জামানের ছোট ভাই চ্যানেল আই অনলাইনকে জানিয়েছিলেন, সবার দোয়ায় এটিএম শামসুজ্জামানের সফল অস্ত্রোপচার হয়েছে। তাকে আরো পাঁচদিন হাসপাতালে রাখতে হবে।

সেলিম আরো বলেছিলেন, ত্রিশ বছর আগে এটিএম শামসুজ্জামানের গলব্লাডারে একটি অপারেশন হয়েছিলো। গলব্লাডারে যে নলটি আছে এখানে কোনো কারণে প্রেসার পড়েছিলো বিধায় গত কয়েকদিন ধরে তার খাদ্য হজম হচ্ছিলো না। যার ফলে খাদ্যগুলো শক্ত পদার্থে রূপ নিয়েছিলো। অপারেশন করে এ সমস্যার সমাধান করলেন চিকিৎসকরা। এ নিয়ে আর কোনো ঝুঁকি নেই। এমন ঝুঁকি মুক্তির খবরের পরও কেন তবে লাইফ সাপোর্টে, এমন প্রশ্ন এখন এটিএম শামসুজ্জামানের পরিবারের।

ষাটের দশকের শুরুতে পরিচালক উদয়ন চৌধুরীর ‘বিষকন্যা’ চলচ্চিত্রে সহকারী পরিচালক হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন এটিএম শামসুজ্জামান। প্রথম কাহিনি ও চিত্রনাট্যকার হিসেবে কাজ করেছেন ‘জলছবি’ ছবিতে। এ পর্যন্ত শতাধিক চিত্রনাট্য ও কাহিনি লিখেছেন। প্রথম দিকে কৌতুক অভিনেতা হিসেবে চলচ্চিত্র জীবন শুরু করলেও খল অভিনেতা হিসেবেই জনপ্রিয়তা পান এটিএম।

দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্যজনিত কারণে অভিনয় থেকে দূরে থাকলেও মাঝেমধ্যেই শখের বশে ছোট ছোট চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে তাকে। তার অভিনীত মুক্তিপ্রাপ্ত সর্বশেষ ছবি নাসির উদ্দিন ইউসুফ বাচ্চুর ‘আলফা’। ২৬ এপ্রিল ছবিটি দেশের চারটি প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

এই বিভাগের পোস্ট

Back to top button
Close