খেলাধুলা

ক্রাইস্টচার্চের মসজিদে সন্ত্রাসী হামলা : তামিমের সঙ্গে কথা বলেছেন আফ্রিদি

ক্রাইস্টচার্চের যে মসজিদে জুমার নামাজ পড়তে গিয়েছিলেন বাংলাদেশের ক্রিকেটারেরা, সেই মসজিদেই সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে। হতাহতের ঘটনা পঞ্চাশ ছুঁয়েছে।

একটু এদিক-ওদিক হলেই বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে সফল ক্রিকেট দল নিঃশেষ হয়ে যেত সন্ত্রাসীদের গুলিতে। শুক্রবার জুম্মার নামাজ আদায় করতে যে মসজিদে যাচ্ছিলেন তামিম-মুশফিকেরা, তারা পৌঁছানোর আগেই সন্ত্রাসী হামলায় মারা যায় একাধিক মানুষ।

হামলাকারীদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলছে নিন্দার ঝড়। সে তালিকায় নাম লিখিয়েছেন সাবেক ও বর্তমান অনেক ক্রিকেটার। পাকিস্তানি অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদিও আছেন এঁদের মাঝে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে কিছুক্ষণ আগে একটা বার্তা দিয়েছেন আফ্রিদি। সেখানে নিউজিল্যান্ডে সন্ত্রাসী হামলায় বিস্ময় লুকাননি এই ক্রিকেটার। সে সঙ্গে বাংলাদেশ দলের যে কোনো ক্ষতি হয়নি এতে স্বস্তি প্রকাশ করেছেন। বিশ্বব্যাপী ধর্ম নিয়ে ঘৃণার রাজনীতি বন্ধের দাবি জানিয়েছেন আফ্রিদি। তবে অন্যদের মতো টুইট করে ক্ষোভ ঝেড়ে নিজের দায়িত্ব সম্পন্ন করেননি।

বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের সঙ্গে নিজে যোগাযোগ করে নিশ্চিত হয়েছেন তাঁরা নিরাপদেই আছেন, ‘ক্রাইস্টচার্চে ভয়ংকর শোকাবহ ঘটনা ঘটেছে। আমি সব সময় নিউজিল্যান্ডকে সবচেয়ে নিরাপদ, শান্তিপূর্ণ দেশ হিসেবে জানি। ওখানকার মানুষ খুবই বন্ধুত্বসুলভ।

তামিমের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। বাংলাদেশ দল ও কোচিং স্টাফরা সবাই নিরাপদে আছে জেনে স্বস্তি পাচ্ছি। এসব থামাতে বিশ্বকে একত্র হতে হবে! এভাবে ঘৃণা করা থামান! সন্ত্রাসবাদের কোনো ধর্ম নেই। শোকসন্তপ্ত পরিবারের জন্য প্রার্থনা। আল্লাহ নিহতদের শান্তি দান করুন।’

এদিকে মসজিদে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার জেরে বাতিল করা হয়েছে কাল থেকে হ্যাগলি ওভালে শুরু হতে যাওয়া ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট। এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) কিছু না জানালেও নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড (এনজেডসি) এরই মধ্যে টুইট করে বিষয়টি জানিয়ে দিয়েছে। ক্রাইস্টচার্চ টেস্ট শেষেই নিউজিল্যান্ড সফর শেষ হওয়ার কথা ছিল বাংলাদেশের। টেস্ট বাতিল হয়ে যাওয়ায় এখন দ্রুতই ফিরে আসবে বাংলাদেশ দল।

আমাদের মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন
Back to top button